Connect with us

আবহাওয়া

East Burdwan News: DVC জল ছাড়তেই ফুঁসছে দামোদর, সতর্কতা জারি প্রশাসনের, রইল কন্ট্রোল রুমের নাম্বার

Published

on

 

কমল কৃষ্ণ দে, পূর্ব বর্ধমান: প্রবলবর্ষণে রাজ্যে ইতিমধ্য়েই একাধিক জেলায় নদীবাধ ভেঙে জল ঢুকেছে গ্রামে। কোথাও ভেসেছে সেতু। ভেসে গিয়েছে যাত্রীবাহী ট্রাক্টর। জল জমে এরই সঙ্গে ডেঙ্গির আশঙ্কায় কাঁটা গ্রামবাসীরা। আর এবার ফের দোসর হল ডিভিসি (DVC)। মূলত ডিভিসি’র জল ছাড়ায় দামোদরের জলস্তর অনেকটাই বেড়েছে। তবে শুধু এবছরই নয়, প্রায় অধিকাংশ বছরই এই কারণে প্রায় বন্যা পরিস্থিতির মুখে পড়তে হয় রাজ্যের একাধিক জেলাগুলিকে। ‘ম্যান মেড বন্যা’ বলে নিয়ে এর আগে মমতা-মোদির মাঝে বিতর্কের ঝড় উঠেছিল। কিন্তু এতকিছু সত্ত্বেও  পরিস্থিতি এতটুকুও বদলায়নি।

যে কোনও প্রয়োজনে রইল জেলার কন্ট্রোল রুম নং 

এবার সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসাবে দামোদর নদ কেন্দ্রিক একাধিক ফেরীঘাট বন্ধ করে দেওয়া হল প্রশাসনের তরফে। ইতিমধ্য়েই শুরু হয়েছে মাইকিং। পঞ্চায়েতের পক্ষ থেকে আপদকালীন অবস্থার জন্য দুটো স্কুলও তৈরি রাখা হয়েছে এবং যে কোনও প্রয়োজনে পঞ্চায়েত প্রধানের সহিত যোগাযোগ করতে বলা হচ্ছে মাইকিং-এর মাধ্যমে। জেলার কন্ট্রোল রুম নং হল 8001192640/ 0342-2665092 

ডিভিসি’র জল ছাড়ায় বাড়ল দামোদরের জলস্তর

ডিভিসি’র জল ছাড়ায় দামোদরের জলস্তর অনেকটাই বেড়েছে।একদিকে দক্ষিণবঙ্গে লাগাতার বর্ষণ। অন্যদিকে ঝাড়খন্ডেও ব্যপক বৃষ্টি। ফলে দামোদর জলাধার থেকে ক্রমাগত জল ছাড়ায় দামোদরে জলস্তর অনেকটাই বেড়েছে। ব্লক থেকে জেলাস্তরে খোলা হয়েছে কন্ট্রোল রুম।দামোদর নদ তীরবর্তী গ্রামগুলোতে জল ছাড়ার সর্তকবার্তা জানিয়ে করা হচ্ছে মাইকিং।

দামোদর নদ তীরবর্তী গ্রামগুলিকে সর্তক করে মাইকিং

এদিকে ডিভিসি থেকে ক্রমাগত জল ছাড়ায় দামোদরের জলস্তর অনেকটা বেড়ে যাওয়ায় সেচ দপ্তরের ইঞ্জিনিয়ারদের নদীবাঁধ পরিদর্শনের নির্দেশ দিয়েছেন জেলাশাসক।বাঁধে কোনো সমস্যা থাকলে তা দ্রুত রক্ষনাবেক্ষণেরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।পাশাপাশি আজ বিকালে গলসী ১ নং ব্লকের লোয়া রামগোপালপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের উদ্যোগে দামোদর নদ তীরবর্তী গ্রামগুলিকে ডিভিসি থেকে জল ছাড়ার জন্য সর্তক করে মাইকিং করা হয়।

আরও পড়ুন, ‘এইভাবে অসম্মান করা যায় ?’, অভিষেকদের সরিয়ে দিতেই সরব TMC কর্মী সমর্থকরা

ফেরীঘাট সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে

অন্যদিকে,খন্ডঘোষের জুবিলা গ্রামে মাঠে গবাদী পশুর জন্য ঘাস কাটতে গিয়ে মৃত্যু হয়েছে এক বৃদ্ধার।মৃতের নাম বাসুদেব সাঁতরা (৬৩)। পূর্ব বর্ধমানের জেলাশাসক পূর্ণেন্দু মাজী জানিয়েছেন,দামোদরের জলাধারগুলির আপার ক্যাচমেন্ট এলাকার বৃষ্টির দিকে নজর রাখা হচ্ছে।এছাড়াও জেলার দামোদর তীরবর্তী সমস্ত ব্লকগুলিকে সতর্ক করা হয়েছে।সতর্কতা মূলক ব্যবস্থা হিসাবে একাধিক ফেরীঘাট সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

 Read More 

Continue Reading
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আবহাওয়া

Weather Update: দক্ষিণের জেলাগুলিতে ভারী বৃষ্টি, উত্তরে জারি লাল সতর্কতা

Published

on

 

সঞ্চয়ন মিত্র, কলকাতা: দক্ষিণবঙ্গে আজও ভারী বৃষ্টি (Rain Forecast)। সপ্তাহান্তে হতে পারে হাওয়া বদল। উত্তরবঙ্গে (North Bengal) জারি লাল সতর্কতা (Red Alert)। বেশ কয়েকটি জেলাতে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার পূর্বাভাস। নামতে পারে ধসও। নদীর জলস্তর বাড়তে পারে দুই বঙ্গেই।                       

আবহাওয়ার আপডেট: গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে অবস্থান করছে নিম্নচাপ। আগামী দু দিনে যা বাংলাদেশে ঢুকে শক্তি ক্ষয় করবে। সিকিম থেকে ছত্রিশগড় পর্যন্ত একটি নিম্নচাপ অক্ষরেখা রয়েছে। এর টানে প্রচুর জলীয় বাষ্প ঢুকছে বঙ্গোপসাগর থেকে। দক্ষিণবঙ্গে আজও ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা বীরভূম, মুর্শিদাবাদ, নদিয়া এবং উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলায়। শুক্রবার পর্যন্ত মেঘলা আকাশ। তবে বৃষ্টির পরিমাণ কমবে সপ্তাহান্তে। শনিবার থেকে হবে হাওয়া বদল। উত্তরবঙ্গে আজও অতিভারী বৃষ্টির লাল সতর্কতা জারি। বেশ কয়েকটি জেলাতে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া।                     

দুর্যোগের আশঙ্কা বিভিন্ন জেলায়: আজও প্রবল বৃষ্টির আশঙ্কায় লাল সর্তকতা জারি কোচবিহার এবং আলিপুরদুয়ারে। জলপাইগুড়ি, কালিম্পঙে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সতর্কতা। ভারী বৃষ্টির সতর্কতা দার্জিলিং, উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর এবং মালদা জেলাতে। শুক্রবার ভারী বৃষ্টির সতর্কতা আলিপুরদুয়ার এবং কোচবিহারে। শনি – রবিবার পর্যন্ত বিক্ষিপ্তভাবে হালকা মাঝারি বৃষ্টি চলবে দার্জিলিং, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার এবং জলপাইগুড়ি জেলায়। উত্তরবঙ্গে ভারী ও অতি ভারী বৃষ্টির ফলে পার্বত্য এলাকায় ধস নামতে পারে। দার্জিলিং ও কালিম্পং জেলায় ধস নামার প্রবণতা সবথেকে বেশি। নদীর জলস্তর বাড়তে পারে দুই বঙ্গেই। নিচু এলাকায় জল জমতে পারে। শস্যের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা।

কলকাতার আবহাওয়ার আপডেট: কলকাতায় আংশিক (Kolkata Weather Update) মেঘলা আকাশ। বজ্রবিদ্যুৎ সহ বিক্ষিপ্তভাবে কয়েক পশলা মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা। দিন ও রাতের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের নিচে। শুক্রবার বেলার দিকে কমবে বৃষ্টির পরিমাণ। শনিবার থেকে আবহাওয়ার পরিবর্তন। কলকাতায় আজ সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৬.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিক। গতকাল বিকেলে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৮.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে ৪ ডিগ্রি কম। বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ ৯২ থেকে ৯৮ শতাংশ। বৃষ্টি হয়েছে ১৬.৬ মিলিমিটার।

আরও পড়ুন: North 24 Parganas Weather: সকাল থেকে মুখভার আকাশের, দিনভর ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস উত্তর ২৪ পরগনায়

 Read More 

Continue Reading

আবহাওয়া

Sikkim Flood Situation: বেঁচে ফিরলেন নিখোঁজ সৈনিকরা, এখনও খোঁজ নেই ১০০ জনের, বানভাসি সিকিমে মৃত ১২

Published

on

গুয়াহাটি: লাগাতার ভারী বৃষ্টিতে নাজেহাল অবস্থা ছিলই। মেঘভাঙা বৃষ্টি কার্যত ধ্বংস করে দিল সিকিমকে। এখনও পর্যন্ত সেখানে ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে খবর। এখনও নিখোঁজ ১০২ জন। এর মধ্যে ২২ জন সেনাকর্মীও গতকাল নিখোঁজ হয়ে যান, তাঁদের খোঁজ মিলেছে বলে খবর (Sikkim Flood)। উত্তরের লোনাক হ্রদের উপর মেঘভাঙা বৃষ্টি আছড়ে পড়াতেই পরিস্থিতি বেগতিক হয়ে ওঠে। তিস্তা নদী উপচে পড়ছে এই মুহূর্তে। হড়পা বানের প্রকোপও নেমে এসেছে। রাজ্য সরকারের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, এখনও পর্যন্ত ১৪টি সেতু ভেঙে পড়েছে সিকিমে। বিভিন্ন জায়গায় আটকে পড়েছেন প্রায় ৩০০০ পর্যটক। (Sikkim Flood Situation)

বুধবার ভোরে মেঘভাঙা বৃষ্টি আছড়ে পড়ে সিকিমে। জলের তোড়ে ভেসে যায় চুংথাং বাঁধ, যা কিনা সিকিমের বৃহত্তম জলবিদ্যুৎ প্রকল্প। তাতেই বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। বিপর্যয় মোকাবিলা আইনে সিকিম সরকার বর্তমান পরিস্থিতিকে বিপর্যয় বলে ঘোষণা করেছে। এর মধ্য়েই একটি মাত্র ভাল খবর সামনে এসেছে। সেনার তরফে জানানো হয়েছে, সিংতামের কাছে বরদাং থেকে ২৩ জন সৈনিকের খোঁজ মিলছিল না। তাঁদের উদ্ধার করা গিয়েছে। প্রত্যেকের অবস্থা স্থিতিশীল।

সিকিম সরকারের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, ১০ জনের মৃত্যুর খবর একেবারে সঠিক। মৃত্যুসংখ্যা আরও বাড়তে পারে। প্রায় ১০০ জন এখনও নিখোঁজ। তিনি বলেন, “জলের তোড়ে ১৪টি সেতু ভেঙে পড়েছে। এর মধ্যে ন’টি ছিল বর্ডার রোডস অর্গানাইজেশনের অধীনে, পাঁচটি রাজ্য সরকারের। প্রচুর ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। বিভিন্ন জায়গায় আটকে পড়েছেন প্রায় ৩০০০ পর্যটক।”

আরও পড়ুন: Sikkim Cloudburst: সিকিমে ভয়াবহ প্রাকৃতিক বিপর্যয়, বানভাসি রাস্তাঘাট, কোথায় কোন রাস্তা বন্ধ, কোন পথই বা খোলা?

পুুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, চুংথাংয়ে তিস্তা স্টেজ-৩ বাঁধে ১৪ জন শ্রমির কাজ করছিলেন। বাঁধ ভেঙে পড়ের পর এখনও সুড়ঙ্গে আটকে রয়েছেন তাঁরা। এখনও পর্যন্ত আহত হয়েছেন যাঁরা, যাঁদের খোঁজ মিলছে না, তাঁরা মূলতচ চুংথাংয়ের মাংনান, দিকচু, সিংতাম, রংপোর বাসিন্দা। উদ্ধার করে আহত অবস্থায় ২৫ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বিপর্যয়ের জেরে এই মুহূর্তে সিকিমের চুংথাং এবং উত্তরে বিস্তীর্ণ অংশে মোবাইল নেটওয়র্ক এবং ব্রডব্যান্ড সংযোগ কাজ করছে না।  সাংকালান এবং তুংয়ে হড়পা বানের ফলে ফাইবার কেবিল নষ্ট হয়ে গিয়েছে বলে খবর। চুংথাংয়ের একটি থানাও ভেঙে পড়েছে। বুধবার সেখানে উদ্ধারকার্যে নামে ভারতীয় সেনার ত্রিশক্তি বাহিনী। ২৩ জন সৈনিককে তারাই উদ্ধার করে। তাঁদের পরিবারকে খবর দেওয়া হয়েছে ইতিমধ্যেই। 

রাজ্য সরকারের তরফে অতিরিক্ত বাহিনী চাওয়া হয়েছে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর কাছে। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে অনুমোদনও মিলেছে তাতে। ত্রাণসামগ্রী পৌঁছে দেওয়ার কাজ শুরু হয়েছে। শিলিগুড়ি থেকে সামগ্রী আনতে অস্থায়ী সেতু বানানোর কাজে নামছে সেনা এবং ন্যাশনাল হাইওয়ে অ্যান্ড ইনফ্র্যাস্ট্রাকচার ডেভলপমেন্ট কর্পোরেশন লিমিটেড। সিংতাং, রংপো, দিকচু, আদর্শ গাঁওয়ে ১৮টি ত্রাণশিবির খোলা হয়েছে।

Read More 

Continue Reading

আবহাওয়া

WB Weather Updates: পুজোর মুখে দুর্যোগের ভ্রুকুটি, লাগাতার বৃষ্টিতে বানভাসি একাধিক গ্রাম, অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস

Published

on

 

কলকাতা: দুর্গাপুজোর মুখে পশ্চিমবঙ্গে দুর্যোগের ভ্রুকুটি। অভিমুখ বদলে ঝাড়খণ্ড হয়ে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে ফিরছে নিম্নচাপ। তার জেরে রাজ্যজুড়ে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস। পশ্চিমেও অতি ভারী বৃষ্টির সতর্কতা জারি হয়েছে (WB Weather Updates)। উত্তরবঙ্গেও অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস। একটানা ভারী বৃষ্টিতে জলস্তর বেড়েছে তিস্তা নদীর। তার মধ্যেই ফের ১ লক্ষ কিউসেকের বেশি জল ছাড়ল ডিভিসি। তাতে দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলায় প্লাবনের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। (Heavy Rainfall)

ছত্তীসগঢ় সংলগ্ন এলাকা থেকে নিম্নচাপ অভিমুখ বদল করে ঝাড়খণ্ড হয়ে আবার গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের দিকে এগিয়ে আসছে। এই মুহূর্তে ঝাড়খণ্ড এবং গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ সংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে নিম্নচাপ। এর ফলে প্রচুর জলীয় বাষ্প ঢুকছে বঙ্গোপসাগর থেকে। তার জেরে দক্ষিণবঙ্গে শুক্রবার পর্যন্ত মেঘলা আকাশ এবং বৃষ্টির সতর্কতা। উপকূলে এবং পশ্চিমের দিকের জেলাগুলিতে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সতর্কতা জারি হয়েছে।

বুধবার সকাল থেকে কলকাতায় আংশিক মেঘলা আকাশ। সেই সঙ্গে সকাল থেকে বৃষ্টি শুরু হয়। শহরের বিভিন্ন জায়গায় ইতিমধ্যেই জল জমে গিয়েছে। টানা বৃষ্টি হলে সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ বাড়বে বলেই মনে করা হচ্ছে। এদিন বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বিক্ষিপ্ত ভাবে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। দিন ও রাতের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের নীচে থাকবে। কলকাতায় আজ সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৫.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিক তাপমাত্রার থেকে ১ ডিগ্রি কম। গতকাল বিকেলে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৯.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে ৪ ডিগ্রি কম। বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ ৮৮ থেকে ৯৮ শতাংশ। বৃষ্টি হয়েছে ৬১.৩ মিলিমিটার।

আবহাওয়া দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েেছ। শনিবার বদলাতে পারে আবহাওয়া। এই মুহূর্তে অতি ভারী বৃষ্টির সতর্কতা রয়েছে বীরভূম এবং মুর্শিদাবাদ জেলায়। বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি দক্ষিণবঙ্গের সব  জেলাতে। ভারী বৃষ্টি হবে উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান এবং নদিয়ায়।

আরও পড়ুন: TMC Delhi Protests: লড়াই বাংলায়, দঙ্গল রাজধানীতে, দিল্লিতেও অভিষেক-শুভেন্দু দ্বৈরথ

বৃহস্পতিবারও ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বীরভূম, মুর্শিদাবাদ, পশ্চিম বর্ধমান, নদিয়া এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলায়। শুক্রবারও বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। উত্তরবঙ্গে আজ অতি ভারী বৃষ্টি নিয়ে কমলা সতর্কতা। বেশ কয়েকটি জেলাতে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া রয়েছে। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ভারী বৃষ্টি চলবে। বৃষ্টির স্পেল শনিবার পর্যন্ত উত্তরবঙ্গে।

আজ অতি ভারী বৃষ্টির সতর্কতা রয়েছে জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার, কালিম্পং জেলায়। ভারী বৃষ্টি হতে পারে দার্জিলিং, কোচবিহার, মালদা, দক্ষিণ দিনাজপুর এবং উত্তর দিনাজপুরে। বৃহস্পতিবার ভারী বৃষ্টির সতর্কতা রয়েছে দার্জিলিং, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার এবং জলপাইগুড়ি জেলাতে।

এই মুহূর্তে সিকিমের পরিস্থিতি ভয়াবহ। নর্থ সিকিমের লোনাক লেকে, মেঘভাঙা বৃষ্টি। তার জেরে চুংথাম বাঁধ ভেঙে ভয়াল আকার নিয়েছে তিস্তা। নদীতে প্রবল জলোচ্ছ্বাস। জলস্তর ১৫ থেকে ২০ ফুট বেড়ে গিয়েছে। স্রোতের টানে ভেসে যাচ্ছে বাড়ি ঘর-গাছ পালা। পাহাড়ি রাস্তায় ভাসছে গাড়ি। চুংথাম এলাকা কার্যত সিকিম থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছে। বানভাসি লাচেনও। বন্য়ায় ক্ষতিগ্রস্ত একাধিক সেনাছাউনি। ২৩ জন সেনা জওয়ানের খোঁজ মিলছে না বলে সেনার তরফে জানানো হয়েছ।

ভয়াবহ দুর্যোগে বিপর্যস্ত কালিম্পংও। জলের তো়ড়ে ধসে গেছে রাস্তা। তিস্তা বাজার, রাম্পু সহ বিভিন্ন এলাকা জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। শিলিগুড়ি থেকে কালিম্পং এবং দার্জিলিং যাওয়ার বিকল্প রাস্তার ওপর দিয়েই বইছে জল। সম্পূর্ণ বন্ধ ১০ নম্বর জাতীয় সড়ক। এদিকে, তিস্তায় জলস্তর ব্য়াপক বেড়ে যাওয়ায় গজলডোবা, জলপাইগুড়ি় সহ তিস্তা তীরবর্তী এলাকাগুলি লাল সতর্কতা জারি করা হয়েছে। 

শনিবার পর্যন্ত বিক্ষিপ্ত ভাবে হালকা মাঝারি বৃষ্টি চলবে দার্জিলিং, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার এবং জলপাইগুড়ি জেলাতে। ভারী ও অতি ভারী বৃষ্টির ফলে উত্তরবঙ্গে পার্বত্য এলাকায় ধস নামতে পারে। দার্জিলিং ও কালিম্পং জেলায় ধস নামার প্রবণতা সবথেকে বেশি। নদীর জলস্তর বাড়তে পারে উত্তর এবং দক্ষিণবঙ্গে। নীচু এলাকায় জল জমে শস্যের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা।

বিদায় বেলায় রাজ্যে আবার সক্রিয় হয়েছে বর্ষা। এই মুহূর্তে বর্ষা বিদায় রেখা গুলমার্গ, ধর্মশালা, মুক্তেশ্বর, পিলভিট, ইন্দোর এবং বরোদা হয়ে পোরবন্দর পর্যন্ত বিস্তৃত। আগামী তিন-চার দিনে উত্তর-পশ্চিম ভারতের বাকি রাজ্য থেকে এবং গুজরাতের কিছু অংশ, মধ্যপ্রদেশের কিছু অংশ এবং রাজস্থানের বেশিরভাগ অংশ থেকে বর্ষা বিদায় নেবে। জম্মু-কাশ্মীর উত্তরাখণ্ড, হিমাচল প্রদেশ এবং গুজরাতের বাকি অংশ থেকে আগামী দু-‘তিন দিনের মধ্যে বর্ষা বিদায় নেবে।

 Read More 

Continue Reading
Advertisement
খেলা1 week ago

Gujrat Titans: পেস অ্যাটাকে শামির সঙ্গে উমেশ, নিলাম শাহরুখ খানকে নিয়ে কতটা শক্তিশালী হল গুজরাত শিবির?

খেলা1 week ago

Sunrisers Hayderabad: রেকর্ড দরে দলে কামিন্স, আছেন বিশ্বকাপ ফাইনালের নায়ক, এক নজরে নতুন মরসুমের সানরাইজার্স শিবির

দেশ1 week ago

Rashmika Mandanna Deepfake Case: রশ্মিকা মান্দানার ‘ডিপফেক’ ভিডিও-কাণ্ডে ৪ সন্দেহভাজনের খোঁজ পেল দিল্লি পুলিশ

খেলা1 week ago

Mitchell Starc: আইপিএলের ইতিহাসে সর্বােচ্চ দর পেয়েছেন, এবার নাইট সমর্থকদের জন্য বড় বার্তা স্টার্কের

দেশ1 week ago

Gauri Khan: রিয়েল এস্টেট প্রতারণা মামলায় শাহরুখ-পত্নী গৌরী খানকে নোটিস ED-র!

খেলা1 week ago

IND vs SA: জর্জির প্রথম ওয়ান ডে সেঞ্চুরি, দ্বিতীয় ওয়ান ডে-তে কেন হারতে হল রাহুলদের?

বিদেশ1 week ago

Donald Trump: পুনরায় প্রেসিডেন্ট হওয়ার অযোগ্য ট্রাম্প, ঘোষণা আমেরিকার আদালতের

দেশ1 week ago

Parliament News Update: সংসদের চেম্বার, লবি-গ্যালারিতে ঢুকতে পারবেন না সাসপেন্ডেড সাংসদরা, সার্কুলার জারি লোকসভার সচিবালয়ের

খেলা1 week ago

IPL Auction: আইপিএল নিলামে রেকর্ডের দিন বাংলার প্রাপ্তির ভাঁড়ার শূন্য, দল পেলেন না কেউই

কলকাতা1 week ago

Covid 19: সামনেই ক্রিসমাস, কোভিডের নতুন ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে উদ্বিগ্ন রাজ্য সরকার

দুর্গা পূজা ২০২৩2 months ago

লালাবাগান সার্বজনীন দুর্গাপূজা

কলকাতা3 months ago

ফ্ল্যাট বিক্রির জালিয়াতির কেস এ অভিনেত্রী নুসরাতের কাছে আরও নথি চাইল ইডি

দেশ3 months ago

ভারত থেকে বেশকিছু কূটনীতিক দের সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়ায় সরালো কানাডা

কর্মখালি3 months ago

পুলিশে 412 ড্রাইভার নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

দুর্গা পূজা ২০২৩3 months ago

সল্টলেকে বি কে ব্লক এর মণ্ডপ সজ্জা | দেখুন কিভাবে সেজে উঠছে |

দেশ3 months ago

বানজারা হিলস রোটারী ক্লাব এর উদ্যোগে মৃত্যু পথযাত্রী নিঃসঙ্গ মানুষ দের জন্য Sparsh Hospice

দেশ3 months ago

ব্যবসার ক্ষেত্রে ভারতের ভিসা সাসপেনশন কি প্রভাব ফেলতে পারে ?

কর্মখালি3 months ago

গ্রন্থাগারিক, পিটিআই এবং সহকারী অধ্যাপক পদের বিজ্ঞপ্তি

কলকাতা3 months ago

ED র অফিসার কি আদৌ প্রশিক্ষিত ? বিচার পতির সন্দেহ প্রকাশ |

আবহাওয়া3 months ago

জলবায়ু পরিবর্তন আরও ভূমিকম্প এবং আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাতের কারণ হতে পারে। জানুন কেন?

দুর্গা পূজা ২০২৩2 months ago

বিবেকানন্দ সার্বজনীন দুর্গোৎসব কমিটির দূর্গা পূজা

দুর্গা পূজা ২০২৩2 months ago

লালাবাগান সার্বজনীন দুর্গাপূজা

দুর্গা পূজা ২০২৩2 months ago

গোলাঘাটা সম্মিলনী পূজা কমিটির দুর্গাপূজা

দুর্গা পূজা ২০২৩2 months ago

হাতিবাগান সার্বজনীন দুর্গাপূজা

দুর্গা পূজা ২০২৩2 months ago

আহিরীটোলা সার্বজনীন দুর্গাপূজা

দুর্গা পূজা ২০২৩2 months ago

কুমোরটুলি সার্বজনীন দুর্গাপুজো

দুর্গা পূজা ২০২৩2 months ago

নলিনী সরকার স্ট্রীটের সার্বজনীন দুর্গাপুজো

দুর্গা পূজা ২০২৩2 months ago

আজাদহিন্দবাগ সার্বজনীন দুর্গোৎসব

দুর্গা পূজা ২০২৩2 months ago

মানিকতলা লোহাপট্টি চালতাবাগান এর দূর্গা পুজো

দুর্গা পূজা ২০২৩2 months ago

লেকটাউন অধিবাসী বৃন্দের দূর্গা পূজা

Trending