Connect with us

দেশ

Durga Puja 2023: বিলেতের মাটিতে বাংলার নাগরদোলা! চন্দননগরের আলো! আয়োজনে ‘আড্ডা’

Published

on

কলকাতা: এক এক করে পাঁচ। বিদেশের মাটিতে বাঙালির সেরা উৎসবের পাঁচ বছরে পা। বিলেতে যেন একটুকরো বাংলা। কলকাতা বা অন্য জেলায় যেমন থিমের মন্ডপ তৈরি করে পুজো হয়- ঠিক সেরকমই একটি পুজো হয় বিলেতের মাটিতেও। আয়োজনে Adda Slough

UK-তে আড্ডার হাত ধরেই প্রথম থিম নির্ভর দুর্গাপুজো (Durga Puja 2023) শুরু হয়েছে। ২০১৯ সাল থেকে এর পথচলা। এবারও পঞ্জিকা মেনেই পুজো হচ্ছে- ২০ অক্টোবর-২৩ অক্টোবর। আর থাকছে Gate of Joy.. সেটা কী? তা জানার আগে একঝলকে জেনে নেওয়া যা এই আয়োজকদের বিষয়ে।

সালটা ২০১৩, লন্ডনের (London) পশ্চিম শহরতলি স্লাউতে জনা পাঁচেক প্রবাসী বাঙালির হাত ধরে শুরু হয় এই সংগঠনের। বাঙালি কৃষ্টি-সংস্কৃতি এবং প্রবাসী বাঙালিদের কথা ভেবেই এর পথচলা শুরু। আর বাঙালির সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে দুটি বিষয়- পুজো এবং আড্ডা। ২০১৩ সালেরই Adda প্রথম সরস্বতী পুজো করে, ২০১৬ সালে শুরু করে কালীপুজো, আর ২০১৯ সালে শুরু হয় দেবী দুর্গার আরাধনা।

আড্ডার পুজোর অন্যতম আকর্ষণ গেট অফ জয়। পুজোকে কেন্দ্র করে বাঙালির কৃষ্টি-সংস্কৃতি-ইতিহাস তুলে ধরতেই এমন ভাবনা। এর আগে বাংলার নানা কোণের নানা টুকরো প্রথা-সংস্কৃতির ছোঁয়া এখানে লেগেছিল। বর্ধমানের কাঠের পুতুল, নয়াগ্রামের পটচিত্র, কুশমন্ডির বাঁশের কাজ ও মুখোশ, পুরুলিয়ার ছৌ নাচের মুখোশে সেজেছে আড্ডার গেট অফ জয়। এবার রয়েছে চন্দননগরের আলোকসজ্জা। গোটা বাংলা তো বটেই, সারা দেশ এমনকী বিশ্বের অন্যত্রও চন্দননগরের আলোকসজ্জার নাম রয়েছে। এবার আড্ডার গেট অফ জয়ে – জায়গা পেয়েছে সেটাই। কাজও শুরু হয়ে গিয়েছে। চন্দননগরের আলোকশিল্পী অমিত শা-এর হাতে চলছে তারই প্রস্তুতি। শুধু বাংলাই নয়, আড্ডার মন্ডপে ভারতের অন্যান্য রাজ্যের নানা বিষয়ও ফুটিয়ে তোলা হচ্ছে।

খাওয়া-দাওয়া ছাড়া বাঙালির পুজো অসম্পূর্ণ। আড্ডা- বরাবরই খাবারের বিষয়ে নজর রাখে। এবারও তার ব্যতিক্রম হচ্ছে না। বাংলা এবং ভারতের নানা জনপ্রিয় পদের স্টল থাকছে এখানে। থাকছে বাংলাদেশে নানা লোভনীয় খাবারও। এর আগের বছরগুলোতেও বড় করে বিজয়া সম্মিলনীর অনুষ্ঠান করেছে আড্ডা। একাধিক বাংলা ব্যান্ড এবং বাংলার শিল্পীরা অনুষ্ঠান করেছেন। এবার আড্ডার বিজয়া অনুষ্ঠানে সবচেয়ে বড় আকর্ষণ অনুপম রায় ও ব্যান্ড। ৪ নভেম্বর হবে সেই অনুষ্ঠান।

ছোট-বড় সবার কাছেই পুজোর মেলা অত্যন্ত পছন্দের। ইদানিং বাংলার মেলার ধারণা ছোটদের কাছে ক্রমশ ফিকে হয়ে আসছে। সেই স্রোতের উল্টোদিকে হাঁটছেন আড্ডার পুজো উদ্যোক্তারা। শিশুদের জন্য থাকছে বাংলা গ্রামীণ মেলা। মিলবে চড়কি নাগরদোলা, রকমারি ভাজা। ইংল্যান্ডের মাটিতে এমন আয়োজনের ভাবনা কেন? আড্ডা পুজোর অন্যতম উদ্যোক্তা প্রসেনজিৎ ভট্টাচার্য বলছেন, ‘অন্যপুজোগুলি কমিউনিটি হলে হয়। আমাদের স্লাউ ক্রিকেট ক্লাবে (Slough Cricket Club) মাঠ আমরা পুজোর জন্য পাই। ফলে আমরা অনেকটাই বড় জায়গা পাই। এখানে অনেকেই আসেন তাঁরা বাচ্চাদের নিয়ে আসেন। বাচ্চারা যাতে মজা পায়, তাদের মতো করে আনন্দ করতে পারে সেই কথা ভেবেই নাগরদোলা-আরও কিছুর ব্যবস্থা করেছি। স্থানীয় ডিলারদের দিয়েই ব্যবস্থা করা হয়।’

বিদেশের মাটিতে পঞ্জিকা মেনে পুজো করা বেশ কঠিন। সেটার ব্যবস্থাও করেছেন আয়োজকরা। অন্যতম উদ্যোক্তা প্রসেনজিৎ ভট্টাচার্য জানাচ্ছেন, বিদেশে ঠিকমতো পঞ্জিকা মেনে পুজো করা বেশ কঠিন। পুরোপুরি পঞ্জিকা মেনে করাও যায় না। তাই পুজোর সবচেয়ে কাছাকাছি উইক এন্ড যেটা হয় সেটা মেনেই পুজো করা হয়। স্লাউ-এর বাঙালিদের মধ্যেই একজন সম্রাট চক্রবর্তী। তিনি পেশায় একজন সফটঅয়্যার আর্কিটেক্ট। আড্ডা স্লাউ-তে তাঁর হাতেই এবার পূজিতা হবেন দেবী দুর্গা। বাঙালির সেরা উৎসব ঘিরে কয়েকদিনের জন্য হলেও লন্ডনের পশ্চিমের এই শহরতলি যেন হয়ে উঠবে একটুকরো বাংলা।

আরও পড়ুন: শিব ভাবনায় সেজে উঠছে পুজোমন্ডপ! আহিরীটোলায় এবার সোমনাথ মন্দির

Read More

Continue Reading
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

দেশ

Rashmika Mandanna Deepfake Case: রশ্মিকা মান্দানার ‘ডিপফেক’ ভিডিও-কাণ্ডে ৪ সন্দেহভাজনের খোঁজ পেল দিল্লি পুলিশ

Published

on

নয়াদিল্লি: রশ্মিকা মান্দানার (Rashmika Mandanna) ‘ডিপফেক’ ভিডিও (Deepfake Video) মামলায় খোঁজ মিলল চার সন্দেহভাজনের। দিল্লি পুলিশ (Delhi Police) খোঁজ পেয়েছে চার জনের (four suspects)। বুধবার সকালে এমনই খবর মিলল, সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে (Source ANI)।

রশ্মিকা মান্দানার ‘ডিপফেক’ ভিডিও মামলায় খোঁজ মিলল ৪ সন্দেহভাজনের

ভারতে সম্প্রতি উদ্বেগ বাড়িয়েছে ‘ডিপফেক’ অর্থাৎ ইন্টারনেটের সাহায্যে বিভিন্ন ধরনের কারচুপি। একের পর এক এই ‘ডিপফেক’-এর শিকার হয়েছেন একাধিক ভারতীয় অভিনেত্রী। এঁদের মধ্যে একেবারে প্রথমদিকেই এই কারচুপির শিকার হন রশ্মিকা। ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয় সেই ‘ডিপফেক’ ভিডিও।

সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, এই মামলার তদন্তে দিল্লি পুলিশ ৪ সন্দেহভাজনের সন্ধান পেয়েছে। ANI সূত্রে খবর, এরা প্রত্যেকেই ওই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করেছে বলে মনে করা হচ্ছে, তারা ভিডিওটি তৈরি করেননি। ফলে মূল সন্দেহভাজনের খোঁজ এখনও চলছে।

 

আরও পড়ুন: Gauri Khan: রিয়েল এস্টেট প্রতারণা মামলায় শাহরুখ-পত্নী গৌরী খানকে নোটিস ED-র!

ঠিক কী ঘটেছিল?

দিন কয়েক আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয় একটি ভিডিও। সেখানে দেখা যায়, কালো ডিপনেক ড্রেস পরে একটি লিফটে উঠছেন ‘পুষ্পা’ অভিনেত্রী। এরপর এক সাংবাদিক ও রিসার্চার অভিষেক কুমার, প্রথম এটি সামনে আনেন যে এই ভিডিও ভুয়ো। এক্স হ্যান্ডলে তিনি আসল ভিডিওটি পোস্ট করেন। এমনকী তিনিও এই পরিস্থিতির মোকাবিলা করার জন্য আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেন। কারণ ভারতে এই ‘ডিপফেক’-এর পরিমণ ক্রমশ বাড়ছে। যে মূল ভিডিও সেটি আসলে ব্রিটিশ-ভারতীয় ইনফ্লুয়েন্সার জারা পটেলের। কিন্তু ‘ডিপফেক’ প্রযুক্তির সাহায্যে কারচুপি করে তাঁর মুখ সরিয়ে সেখানে রশ্মিকার মুখ বসিয়ে দেওয়া হয়। এরপর একই ধরনের ঘটনার সম্মুখীন হন অভিনেত্রী ক্যাটরিনা কাইফও। তবে তাঁর ছবি কিছুক্ষণের মধ্যেই মুছে দেওয়া হয় সোশ্যাল মিডিয়া থেকে। ‘ডিপফেক’-এর শিকার হয়েছেন কাজল, আলিয়া ভট্ট, প্রিয়ঙ্কা চোপড়ার মতো তারকা অভিনেত্রীরা।

আপনার পছন্দের খবর আর আপডেট এখন পাবেন আপনার পছন্দের চ্যাটিং প্ল্যাটফর্ম হোয়াটস অ্যাপেও। যুক্ত হোন ABP Ananda হোয়াটস অ্যাপ চ্যানেলে।

Read More

Continue Reading

দেশ

Gauri Khan: রিয়েল এস্টেট প্রতারণা মামলায় শাহরুখ-পত্নী গৌরী খানকে নোটিস ED-র!

Published

on

নয়াদিল্লি: ইডি নোটিস (ED Notice) পাঠাল শাহরুখ খানের (Shah Rukh Khan) স্ত্রী গৌরী খানকে (Gouri Khan)। রিয়েল এস্টেট (Real Estate) সংস্থার প্রতারণার মামলা। ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হিসেবে কত টাকা পেয়েছিলেন গৌরী? জানতে চায় এজেন্সি।

গৌরী খানকে ইডি-র নোটিস

খবর মিলেছে বলিউডের কিং খানের স্ত্রী, ইন্টিরিয়র ডিজাইনার এবং প্রযোজক গৌরী খানকে ৩০ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট আইনি নোটিস পাঠিয়েছে। যদিও এক ঘনিষ্ঠ সূত্র মারফৎ এই তথ্য ভুয়ো বলেও উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার সূত্র থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী, ‘গৌরী খান লখনউয়ের এক রিয়েল এস্টেট সংস্থা তুলসিয়ানি গ্রুপের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর। যদিও ফার্মের বিরুদ্ধে বিনিয়োগকারী এবং ব্যাঙ্ক থেকে ৩০ কোটি টাকা প্রতারণার অভিযোগ রয়েছে, কিন্তু গৌরীকে ইডির নোটিস পাঠানোর খবর সবটাই ভুয়ো।’

সূত্রের আরও দাবি, ‘প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে তুলসিয়ানি গ্রুপের বিরুদ্ধে বিনিয়োগকারী এবং ব্যাঙ্কের প্রায় ৩০ কোটি টাকার আর্থিক ক্ষতির অভিযোগ রয়েছে। তবে এ ধরনের কোনও মামলার সঙ্গে গৌরীর কোনও সম্পর্ক নেই। ইডি আধিকারিকরা বিভিন্ন দিক খতিয়ে দেখবেন।’

আরও পড়ুন: Mithun Chakraborty Exclusive: ‘রহমত নয়, আমার কাছে অনেক বেশি কাছের…’, ছবির বাইরে কোন গল্প শোনালেন মিঠুন ?

শাহরুখ-পত্নীর বিরুদ্ধে পূর্বেই FIR দায়ের

চলতি বছরে মার্চ মাসের শুরুতে বিশ্বাসভঙ্গের (criminal breach of trust) অভিযোগে এফআইআর (FIR) দায়ের করা হয় গৌরী খানের বিরুদ্ধে। লখনউয়ের সুশান্ত গল্ফ সিটি পুলিশ স্টেশনে গৌরী খান-সহ মোট তিনজনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়। গৌরী ছাড়া অপর দু’জন হলেন ‘তুলসিয়ানি গ্রুপ’-এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর অনিল তুলসিয়ানি ও ডিরেক্টর মহেশ তুলসিয়ানি। অভিযোগ দায়ের করেন মুম্বইয়ের বাসিন্দা কীরিট জসওয়ান্ত শাহ। তাঁর অভিযোগ ২০১৫ সালে ‘তুলসিয়ানি কনস্ট্রাকশন অ্যান্ড ডেভেলপার্স’-এর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হন গৌরী খান। তিনি FIR-এ উল্লেখ করেছেন, ‘ওই বছরই আমি সংস্থার সুশান্ত গল্ফ সিটির অফিসে যাই এবং সংস্থার ডিরেক্টরের সঙ্গে দেখা করি এবং ৮৬ লক্ষ টাকার একটি ফ্ল্যাট কেনার সিদ্ধান্ত নিই।’ শাহের অভিযোগ, ‘আমাকে বলা হয়েছিল যে ২০১৬ সালে ফ্ল্যাটের চাবি আমাকে দিয়ে দেওয়া হবে। সেই থেকে অনেকটা সময় কেটে গেছে এবং আমি এখনও ফ্ল্যাট পাইনি। পরে, বুঝতে পারছি যে ফ্ল্যাট আমার কেনার কথা ছিল তার চুক্তিপত্র অন্য একজনকে দিয়ে দেওয়া হয়েছে সংস্থার পক্ষ থেকেই।’ গৌরী খানের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪০৯ ধারার (বিশ্বাসভঙ্গের অভিযোগ) অধীনে FIR দায়ের করা হয় সেই সময়। অভিযোগে মুম্বইয়ের বাসিন্দা কীরিট জসওয়ান্ত শাহ দাবি করেন তিনি ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর গৌরী খানকে দেখে অনুপ্রাণিত হয়েই ফ্ল্যাট কেনেন ওই সংস্থা মারফত।

Read More

Continue Reading

দেশ

Parliament News Update: সংসদের চেম্বার, লবি-গ্যালারিতে ঢুকতে পারবেন না সাসপেন্ডেড সাংসদরা, সার্কুলার জারি লোকসভার সচিবালয়ের

Published

on

নয়াদিল্লি : লোকসভা থেকে ৯৫ জন ও রাজ্যসভা থেকে ৪৬ জন। মোট ১৪১ জন সাংসদ সাসপেন্ড হওয়ার পর এবার তাঁদের উদ্দেশ্যে সার্কুলার জারি করল লোকসভার সচিবালয়। সার্কুলারে বলা হয়েছে, সাসপেন্ডেড সাংসদরা সংসদের চেম্বার, লবি বা গ্যালারিতে প্রবেশ করতে পারবেন না।

ভারতীয় সংসদীয় ইতিহাসে নজিরবিহীন ঘটনা। বিরোধী সাংসদদের সাসপেনশনের সংখ্য়া সেঞ্চুরি ছাড়িয়ে গেছে! সংসদ থেকে সাসপেন্ড হয়েছেন বিরোধী দলের মোট ১৪১ জন সাংসদ। এর মধ্যে, লোকসভা থেকে সাসপেন্ড করা হয়েছে ৯৫ জন সাংসদকে। রাজ্যসভা থেকে সাসপেন্ড করা হয়েছে মোট ৪৬ জন সাংসদকে।

লোকসভায় ৫৪৩ টি আসনের মধ্যে, জোট ইন্ডিয়ার সাংসদ রয়েছেন ১৪২ জন। তার মধ্যে সাসপেন্ড হয়েছেন ৯৫ জন। অন্যদিকে, রাজ্যসভার ২৫০ টি আসনের মধ্যে, ইন্ডিয়া জোটের সাংসদ রয়েছেন ১০১ জন। যার মধ্যে ৪৬ জনকেই সাসপেন্ড করা হয়েছে। হিসেব করলে দেখা যাচ্ছে, বিরোধী জোটের ৫৮ শতাংশ সাংসদকেই সাসপেন্ড করে দেওয়া হয়েছে।

সূত্রের খবর মঙ্গলবার দিল্লিতে বিজেপির সংসদীয় দলের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ১৩ ডিসেম্বর যে ঘটনা ঘটেছে, সব জায়গায় যে ঘটনার দ্ব্যর্থহীনভাবে বিরোধিতা করা হচ্ছে, এটা সমবেতভাবে বিরোধীদের একটা ‘পলিটিকাল স্পিন’।

বিরোধীরা চাইছে সংসদে নিরাপত্তা বিঘ্নিত হওয়া নিয়ে প্রধানমন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সংসদে বিবৃতি দিন। কিন্তু তাঁরা তা দিতে নারাজ। আর তা নিয়েই যাবতীয় বিতর্ক।

প্রণব মুখোপাধ্য়ায় তাঁর বই.. দ্য় প্রেসিডেনশিয়াল ইয়ার্স ২০১২-২০১৭-তে লিখেছেন, জওহরলাল নেহরুর সময় বিতর্ক বিরোধিতা এবং আলোচনার দিকটি বিশেষ করে সমৃদ্ধ হয়। নেহরু শুধুমাত্র বিতর্কে উৎসাহই দিতেন না, মতবিরোধকেও সম্মান করতেন। অটলবিহারী বাজপেয়ী-সহ বহু বিরোধী নেতা সংসদে দাগ কাটতে পেরেছিলেন তার কারণ সেই সময়ের সরকারের পক্ষ থেকে তাঁদের বক্তব্য, অবস্থান এবং সমালোচনাকে প্রকাশ করার অবাধ স্বাধীনতা দেওয়া হত। জওহরলাল নেহরুই হোন বা ইন্দিরা গাঁধী, মনমোহন সিংহ, অটলবিহারী বাজপেয়ী — প্রত্যেক প্রধানমন্ত্রী সংসদে তাঁদের উপস্থিতি বুঝিয়ে দিতেন।

সংসদে সাংসদদের বিরোধিতার রীতি চলে আসছে বহু দশক ধরে। বিজেপি বনাম কংগ্রেস-তৃণমূল নয়, ক্ষমতাসীন এবং বিরোধী দলগুলির মধ্যে এযাবৎ এই রীতিই চলে এসেছে। গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আলোচনার সময় না পাওয়া গেলে, সরকার প্রশ্নের উত্তর না দিলে, ট্রেজারি বেঞ্চের প্রতিশোধপূর্ণ আচরণ, ইচ্ছাকৃত ভাবে সংসদের অধিবেশন বিঘ্ন ঘটানো হলে এবং উপদ্রব ঘটানো সাংসদদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ না করা হলে, বিক্ষোভ দেখান সাংসদরা। বিরোধী শিবিরের সাংসদদের প্রশ্নের উত্তরে দিতে বাধ্য সরকার। গত ৭০ বছর ধরে এই রীতিতে কোনও পরিবর্তন ঘটেনি।

Read More

Continue Reading
Advertisement
খেলা7 days ago

Gujrat Titans: পেস অ্যাটাকে শামির সঙ্গে উমেশ, নিলাম শাহরুখ খানকে নিয়ে কতটা শক্তিশালী হল গুজরাত শিবির?

খেলা7 days ago

Sunrisers Hayderabad: রেকর্ড দরে দলে কামিন্স, আছেন বিশ্বকাপ ফাইনালের নায়ক, এক নজরে নতুন মরসুমের সানরাইজার্স শিবির

দেশ7 days ago

Rashmika Mandanna Deepfake Case: রশ্মিকা মান্দানার ‘ডিপফেক’ ভিডিও-কাণ্ডে ৪ সন্দেহভাজনের খোঁজ পেল দিল্লি পুলিশ

খেলা7 days ago

Mitchell Starc: আইপিএলের ইতিহাসে সর্বােচ্চ দর পেয়েছেন, এবার নাইট সমর্থকদের জন্য বড় বার্তা স্টার্কের

দেশ7 days ago

Gauri Khan: রিয়েল এস্টেট প্রতারণা মামলায় শাহরুখ-পত্নী গৌরী খানকে নোটিস ED-র!

খেলা7 days ago

IND vs SA: জর্জির প্রথম ওয়ান ডে সেঞ্চুরি, দ্বিতীয় ওয়ান ডে-তে কেন হারতে হল রাহুলদের?

বিদেশ7 days ago

Donald Trump: পুনরায় প্রেসিডেন্ট হওয়ার অযোগ্য ট্রাম্প, ঘোষণা আমেরিকার আদালতের

দেশ7 days ago

Parliament News Update: সংসদের চেম্বার, লবি-গ্যালারিতে ঢুকতে পারবেন না সাসপেন্ডেড সাংসদরা, সার্কুলার জারি লোকসভার সচিবালয়ের

খেলা7 days ago

IPL Auction: আইপিএল নিলামে রেকর্ডের দিন বাংলার প্রাপ্তির ভাঁড়ার শূন্য, দল পেলেন না কেউই

কলকাতা7 days ago

Covid 19: সামনেই ক্রিসমাস, কোভিডের নতুন ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে উদ্বিগ্ন রাজ্য সরকার

দুর্গা পূজা ২০২৩2 months ago

লালাবাগান সার্বজনীন দুর্গাপূজা

কলকাতা3 months ago

ফ্ল্যাট বিক্রির জালিয়াতির কেস এ অভিনেত্রী নুসরাতের কাছে আরও নথি চাইল ইডি

দেশ3 months ago

ভারত থেকে বেশকিছু কূটনীতিক দের সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়ায় সরালো কানাডা

কর্মখালি3 months ago

পুলিশে 412 ড্রাইভার নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

দুর্গা পূজা ২০২৩3 months ago

সল্টলেকে বি কে ব্লক এর মণ্ডপ সজ্জা | দেখুন কিভাবে সেজে উঠছে |

দেশ3 months ago

বানজারা হিলস রোটারী ক্লাব এর উদ্যোগে মৃত্যু পথযাত্রী নিঃসঙ্গ মানুষ দের জন্য Sparsh Hospice

দেশ3 months ago

ব্যবসার ক্ষেত্রে ভারতের ভিসা সাসপেনশন কি প্রভাব ফেলতে পারে ?

কর্মখালি3 months ago

গ্রন্থাগারিক, পিটিআই এবং সহকারী অধ্যাপক পদের বিজ্ঞপ্তি

কলকাতা3 months ago

ED র অফিসার কি আদৌ প্রশিক্ষিত ? বিচার পতির সন্দেহ প্রকাশ |

খেলা3 months ago

সুপার সিক্স এর প্রথম ম্যাচ এ পরাজিত ইস্টবেঙ্গল

দুর্গা পূজা ২০২৩2 months ago

বিবেকানন্দ সার্বজনীন দুর্গোৎসব কমিটির দূর্গা পূজা

দুর্গা পূজা ২০২৩2 months ago

লালাবাগান সার্বজনীন দুর্গাপূজা

দুর্গা পূজা ২০২৩2 months ago

গোলাঘাটা সম্মিলনী পূজা কমিটির দুর্গাপূজা

দুর্গা পূজা ২০২৩2 months ago

হাতিবাগান সার্বজনীন দুর্গাপূজা

দুর্গা পূজা ২০২৩2 months ago

আহিরীটোলা সার্বজনীন দুর্গাপূজা

দুর্গা পূজা ২০২৩2 months ago

কুমোরটুলি সার্বজনীন দুর্গাপুজো

দুর্গা পূজা ২০২৩2 months ago

নলিনী সরকার স্ট্রীটের সার্বজনীন দুর্গাপুজো

দুর্গা পূজা ২০২৩2 months ago

আজাদহিন্দবাগ সার্বজনীন দুর্গোৎসব

দুর্গা পূজা ২০২৩2 months ago

মানিকতলা লোহাপট্টি চালতাবাগান এর দূর্গা পুজো

দুর্গা পূজা ২০২৩2 months ago

লেকটাউন অধিবাসী বৃন্দের দূর্গা পূজা

Trending